ইফতার করানোর সাওয়াব

যায়েদ বিন খালিদ আল জুহানী সূত্রে বর্ণিত: রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: যে ব্যক্তি কোন রোযাদারকে ইফতার করাবে, তার জন্য রোযাদারের সমান সাওয়াব রয়েছে। অথচ রোযাদারে সাওয়াব একটুও কম করা হবে না। (তিরমিযী ৮০৭, ইবনে মাজাহ ১৭৪৬, সহীহ আল জামে’ আলবানী, ৬৪১৫)

                   

————————————————————————————
আজ দ্বিতীয় রমযানে আমাকেও আমার সহকর্মী মাওলানা সিফাত আলাম (ইণ্ডিয়ান)-কে ওয়াজ করার জন্য দাওয়াত করা হয়। কুয়েতে সুররা এলাকার কয়েকজন কুয়েতি মিলে বিশাল এক তাবু টাঙ্গিয়েছে, সেখানে প্রায় ১৫০০ রোযাদার এক সাথে ইফতারী করতে পারে। আমরা ৫:৩০ মিনিটে তাবুতে পৌঁছে গেলাম। গিয়ে দেখি তাবু পুরোটাই খালী

ভাবতে থাকলাম এতবড় তাবু রোযাদার দিয়ে ভরবে কখন? ৫:৪৫ মিনিট থেকে ক্রমশঃ রোযাদারগণ আসতে লাগলো, ১৫ মিনিটের মাথায় তাবুটি কানায় কানায় ভরেগেল। আলহামদুলিল্লাহ

প্রতিদিন ১৫০০ লোকের ইফতার সত্যিই বিশাল খরচ, আর এই খরচ একমাত্র সাওয়াবের আশায়ই করা হয়। আল্লাহ তাদের এই নেক আমল কবুল করুন।